,
সংবাদ শিরোনাম :

শিক্ষার অভাবেই খালেদা জিয়া ভুল বলছেন: আমু

সময় সংলাপ ডেস্ক
ঝালকাঠি প্রতিনিধি

খালেদা জিয়া মামলা পরিচালনা নিয়ে সমস্ত রেকর্ড ভঙ্গ করেছেন। তিনি ৬৭ বার আইনজীবীর মাধ্যমে কোর্টে উপস্থিত দেখিয়েছেন এবং শতবার তারিখ পরিবর্তন করেছেন। এ নিয়ে সরকার কোনো পদক্ষেপ নেয়নি। এজন্য শেখ হাসিনার প্রতি খালেদা জিয়ার কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করা উচিত ছিল। তা না করে মাপ করে দেয়া কথা বলেছেন। শিক্ষাগত যোগ্যতার কারণেই খালেদা জিয়া এ ধরনের ভুল কথা বলছেন।

শুক্রবার ঝালকাঠির নলছিটি শহরে পানি সরবরাহের লক্ষ্যে ‘সারফেস ওয়াটার ট্রিটমেন্ট প্লান্ট’ নির্মাণ কাজের ভিত্তিফলক উন্মোচন করার পর আয়োজিত সমাবেশে শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু এসব কথা বলেন।

জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর ও নলছিটি পৌরসভা ‘উপজেলা সদর ও গ্রোথ সেন্টার পৌরসভাসমূহে পাইপ লাইনের মাধ্যমে পানি সরবরাহ ও এনভারমেন্টাল স্যানিটেশন প্রকল্পের আওতায়’ পাঁচ কোটি ৭৮ লাখ টাকা ব্যয়ে এ কাজ বাস্তবায়ন করছে।

আমির হোসেন আমু বলেন, আমাদের দেশে ‘মাছে কোচ ধাওয়ায়’ বলে প্রবাদ রয়েছে। এখন খালেদা জিয়াও সে ধরনের আচরণ করছেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ক্ষমা করে দেয়ার বিষয়ে তিনি যে উক্তি করেছেন তা একবারেই মিথ্যা। খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে শেখ হাসিনা কোনো মামলা দেননি। তার বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে তত্ত্বাবধায়ক সরকার আমলে। অথচ বিএনপি ক্ষমতায় আসার পর খালেদা জিয়া প্রতিহিংসা পরায়ণ হয়ে শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে ১২টি মামলা দিয়েছিল এবং সব মামলাই আইনের মাধ্যমে মিথ্যা প্রমাণিত হয়েছে।

শিল্পমন্ত্রী আমু বলেন, বর্তমান সরকার উন্নয়নবান্ধব। শেখ হাসিনা প্রধানমন্ত্রী আছেন বলেই দেশের তৃণমূল পর্যায়ে উন্নয়ন হচ্ছে। দেশের মানুষ যাতে সুখে-শান্তিতে থাকতে পারে তার জন্য প্রধানমন্ত্রী সব ধরনের ব্যবস্থা গ্রহণ করেছেন।

তিনি বলেন, নলছিটিকে একটি আধুনিক পৌরসভায় রূপান্তর করা হবে। এক সময় নলছিটি পৌরসভা ছিল তৃতীয় শ্রেণির। পরে তা দ্বিতীয় শ্রেণিতে উন্নীত করেছি। পৌর এলাকায় আরো উন্নয়ন করা হবে। মানুষ শান্তিতে থাকতে পারে, সে ব্যবস্থা করা হবে।

নলছিটি পৌরসভার মেয়র ও উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি তছলিম উদ্দিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে ঝালকাঠি জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি সরদার মো. শাহ আলম, নলছিটি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট ইউনুস লস্কর, নলছিটি পৌর আওয়ামী লীগ সভাপতি ডাক্তার এসকেন্দার আলী খান, জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের কর্মকর্তা এবং স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দসহ বিশিষ্ট ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন।


প্রতিদিন সব ধরনের খবর জানতে ও মজার মজার ভিডিও দেখতে আমাদের ফেইসবুক পেজে লাইক কমেন্ট শেয়ার করে এক্টিভ থাকুন -বাংলাদেশ অনলাইন, পত্রিকা, সময় সংলাপ ডট কম,আমাদের ফেইসবুক পেজ লাইক দিতে নিচে ফেইসবুক লাইক বটন এ ক্লিক করুন ,অনেক ধন্যবাদ আবার আসবেন

sponser