,
সংবাদ শিরোনাম :

আজকাল নাটকে অভিনয় করে তৃপ্তি পাচ্ছি না’,,,,বিস্তারিত বিবরণ

সময় সংলাপ ডেস্ক

ছোট পর্দার দর্শকপ্রিয় অভিনেতা আদনান ফারুক হিল্লোল। ধারাবাহিক নাটক নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন তিনি। বিশেষ দিবসের নাটকের বাইরে এই অভিনেতাকে খণ্ড নাটকে দেখা যায় না। এই সময়ে দীপ্ত টিভির ‘অলি’, শিশুতোষ চ্যানেল দুরন্ত টিভির ‘টিরিগিরি টক্কা’ ও এশিয়ান টিভির ‘অ্যাকশন গোয়েন্দা’ শীর্ষক ধারাবাহিকে হিল্লোলকে দেখা যাচ্ছে। গেল ৩রা ডিসেম্বর থেকে এশিয়ান টিভিতে ‘অ্যাকশন গোয়েন্দা’ ধারাবাহিকটি প্রচার শুরু হয়েছে। এটি পরিচালনা করছেন হাসান জাহাঙ্গীর। এই ধারাবাহিকে হিল্লোলকে নেতিবাচক চরিত্রে দেখা যাচ্ছে। তবে প্রচার চলতি এই ধারাবাহিকটি নিয়ে অসন্তুষ্টি প্রকাশ করলেন তিনি। এর কারণ সম্পর্কে জানতে চাইলে হিল্লোল বলেন, এই ধারাবাহিকের জন্য আমি শুধু একদিন অভিনয় করেছি। এখানে আমার চরিত্রটি সম্পর্কে আমি পরিষ্কার নই। আমার মতো একজন অভিনেতাকে দিয়ে একদিন অভিনয় করিয়ে নাটকটি প্রচার শুরু করা হয়েছে। অথচ সেটি আমি জানি না। এছাড়া এই নাটকের কোনো স্ক্রিপ্ট আমাকে দেয়া হয়নি। একদিনের শুটিংয়ে দেখেছি পুরো গল্পজুড়ে নির্মাতা নিজেই শুধু অভিনয় করছেন। আমি জানি না নির্মাতা এই ধারাবাহিকটি কত পর্ব পর্যন্ত প্রচার করতে পারবেন। তিনি আরো বলেন, সত্যি বলতে এ বিষয়গুলোর প্রতি টিভি চ্যানেল কর্তৃপক্ষের আরো বেশি আন্তরিক হওয়া প্রয়োজন। টিভি চ্যানেলগুলো মান বিচার না করেই অনেক নাটক প্রচার করছে। ফলে মানহীন নাটকের কারণে দর্শকরা টিভিনাটক বিমুখ হয়েছে বলে আমি মনে করি। প্রচার চলতি ধারাবাহিকগুলো ছাড়াও হিল্লোল দীপ্ত টিভির জন্য রহমতুল্লাহ তুহীনের ‘নিউ ইয়র্ক থেকে বলছি’ শীর্ষক একটি ধারাবাহিকে কাজ করছেন। নিউ ইয়র্কে এই ধারাবাহিকটির প্রায় ষাট পর্বের মতো শুটিং হয়েছে বলে জানান তিনি। আগামী ফেব্রুয়ারির শেষের দিকে ধারাবাহিকটি প্রচারে আসবে। টিভি নাটকের পাশাপাশি হিল্লোল তার নিজস্ব ইউটিউব চ্যানেলের জন্য ‘ডাইন আউট উইথ আদনান’ শীর্ষক একটি অনুষ্ঠান করছেন। এরইমধ্যে এটির চার পর্ব প্রচার করেছেন তিনি। অনুষ্ঠানটি নিয়ে দর্শকদের কাছ থেকে বেশ সাড়া পাচ্ছেন বলে জানান হিল্লোল। একটু ব্যতিক্রমী ঢংয়ে এই অনুষ্ঠানটি সাজানো হয়েছে। এখানে তিনি প্রতিটি পর্বে কোনো একটি রেস্টুরেন্টের খাবার সম্পর্কে বর্ণনা দিয়ে থাকেন। খাবারের মান, পরিবেশ ও কেমন খরচ পড়বে সেই বিষয়ে জানান। আগামীদিনের রেসিপি নিয়েও একটি প্রোগ্রাম করার পরিকল্পনা রয়েছে এই অভিনেতার। ইউটিউবের প্রতি তার আগ্রহী হয়ে ওঠার কারণ সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আজকাল নাটকে অভিনয় করে তৃপ্তি পাচ্ছি না। তার বিকল্প হিসেবে ইউটিউবকে বেছে নিয়েছি। এছাড়া এখন সবাই ডিজিটাল হয়ে পড়ছে। ইউটিউবে প্রতিদিনই দর্শক বাড়ছে। ইউটিউবের প্রোগ্রামগুলোর প্রতি দর্শকদের বেশ আগ্রহ দেখা যায়। সেদিক বিবেচনা করেই আমার চ্যানেলে এই অনুষ্ঠানটি প্রচার শুরু করেছি। এদিকে এরইমধ্যে শুরু হয়েছে ২০১৭ সালের হিসাব-নিকাশ। বছরের শেষ প্রান্তে এসে দাঁড়িয়েছে সবাই। শোবিজের চলতি বছর সম্পর্কে হিল্লোলের মন্তব্য কী? এই সম্পর্কে তিনি বলেন, শোবিজের চলমান সময় নিয়ে আমি শঙ্কিত। গেল রমজান ঈদের পর কিছুটা আশাবাদী ছিলাম। কিন্তু সেই আশার আলো এখন আবারো নিভু নিভু করছে। আমাদের কোনো কিছুই এখন নিয়মের মধ্যে চলছে না। সবাই নিজের মতো করেই কাজ করছে। দুঃখজনক বিষয় হলো চলতি বছরে আমাদের অনেক তারকা দম্পতির বিচ্ছেদ হয়েছে। সব মিলিয়ে বলা যায়, চলতি বছর শোবিজের জন্য ভালো সময় যায়নি।


প্রতিদিন সব ধরনের খবর জানতে ও মজার মজার ভিডিও দেখতে আমাদের ফেইসবুক পেজে লাইক কমেন্ট শেয়ার করে এক্টিভ থাকুন -বাংলাদেশ অনলাইন, পত্রিকা, সময় সংলাপ ডট কম,আমাদের ফেইসবুক পেজ লাইক দিতে নিচে ফেইসবুক লাইক বটন এ ক্লিক করুন ,অনেক ধন্যবাদ আবার আসবেন

sponser